বাস্তব ও অবাস্তব বিম্ব কাকে বলে ? বাস্তব ও অবাস্তব বিম্বের পার্থক্য

এই পাঠে আমরা শিখব বাস্তব ও অবাস্তব বিম্ব কাকে বলে এবং বাস্তব ও অবাস্তব বিম্বের পার্থক্য সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। প্রথমে বিম্ব সম্পর্কে আলোচনা করা হলো।

 

বিম্ব কাকে বলে

কোন বিন্দু থেকে নিঃসৃত আলোক রশ্মিগুচ্ছ প্রতিফলিত বা প্রতিসরিত হয়ে যদি দ্বিতীয় কোন বিন্দুতে মিলিত হয় বা দ্বিতীয় কোন বিন্দু থেকে অপসৃত হচ্ছে বলে মনে হয়, তাহলে ঐ দ্বিতীয় বিন্দুকে প্রথম বিন্দুর বিম্ব বলে।

চিত্রে Q হল P বিন্দুর বিম্ব।

বিম্ব কাকে বলে

বাস্তব বিম্ব কাকে বলে

কোন বিন্দু থেকে নিঃসৃত আলোক রশ্মিগুচ্ছ প্রতিফলিত বা প্রতিসরিত হয়ে যদি দ্বিতীয় কোন বিন্দুতে প্রকৃতপক্ষে মিলিত হয় তাহলে দ্বিতীয় বিন্দুকে প্রথম বিন্দুর বাস্তব বিম্ব বলে।

বাস্তব বিম্ব কাকে বলে

অবাস্তব বিম্ব কাকে বলে

কোন বিন্দু থেকে নিঃসৃত আলোক রশ্মিগুচ্ছ প্রতিফলিত বা প্রতিসরিত হয়ে যদি দ্বিতীয় কোন বিন্দু থেকে অপসৃত হচ্ছে বলে মনে হয়, তাহলে দ্বিতীয় বিন্দুকে প্রথম বিন্দুর অবাস্তব বিম্ব বলে।

অবাস্তব বিম্ব কাকে বলে

বাস্তব ও অবাস্তব বিম্বের পার্থক্য

বাস্তব বিম্ব

১. কোন বিন্দু থেকে নিঃসৃত আলোক রশ্মিগুচ্ছ প্রতিফলন বা প্রতিসরণের পর দ্বিতীয় কোন বিন্দুতে মিলিত হলে বাস্তব বিম্ব গঠিত হয়।

২. প্রতিফলিত বা প্রতিসরিত আলোক রশ্মির প্রকৃত মিলনের ফলে বাস্তব বিম্ব গঠিত হয়।

৩. চোখে দেখা যায় এবং পর্দায়ও ফেলা যায়।

৪. অবতল দর্পণ ও উত্তল লেন্সে উৎপন্ন হয়।

অবাস্তব বিম্ব

১. কোন বিন্দু থেকে নিঃসৃত আলোক রশ্মিগুচ্ছ প্রতিফলন। বা প্রতিসরণের পর দ্বিতীয় কোন বিন্দু থেকে অপসৃত। হচ্ছে বলে মনে হলে দ্বিতীয় বিন্দুতে অবাস্তব বিম্ব গঠিত হয়।

২. অবাস্তব বিম্বের ক্ষেত্রে প্রতিফলিত বা প্রতিসরিত রশ্মিগুলোর প্রকৃত মিলন হয় না।

৩. চোখে দেখা যায় কিন্তু পর্দায় ফেলা যায় না।

৪. সব রকম দর্পণ ও লেন্সে উৎপন্ন হয়।

অবতল দর্পণের ফোকাস দূরত্ব নির্ণয়

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top