তাপগতিবিদ্যা কাকে বলে? তাপগতীয় কয়েকটি রাশি

আজ আমরা জানব তাপগতিবিদ্যা কাকে বলে এর সাথে জানব তাপগতীয় সিস্টেম কাকে বলে এবং পরিপার্শ্ব সম্পর্কে উদাহরণ সহ বিস্তারিত আলোচান করব।

তাপগতিবিদ্যা কাকে বলে তাপগতীয় সিস্টেম কাকে বলে

 

তাপগতিবিদ্যা কাকে বলে

পদার্থ বিজ্ঞানের যে শাখায় তাপ ও যান্ত্রিক শক্তির পরস্পর রূপান্তর ও সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা করা হয় তাকে তাপগতিবিদ্যা বলে।

তাপগতীয় সিস্টেম কাকে বলে (তাপগতীয় ব্যবস্থা)

তাপগতীয় সিস্টেম বা ব্যবস্থা বলতে তল দ্বারা সীমাবদ্ধ কোনো নির্দিষ্ট পরিমাণ বস্তুকে বুঝায়। যেমন: পিস্টনযুক্ত সিলেন্ডারে অথবা একটি বেলুনে আবদ্ধ গ্যাস।

পরিপার্শ্ব কাকে বলে

একটি ব্যবস্থার আশে পাশের সব কিছুকে বলা হয় পরিপার্শ্ব।

যেমনঃ

পিস্টন ও সিলিন্ডারের আশে পাশের বায়ু হলো পরিপার্শ্ব। অন্যভাবে বলা যায়, কোনো নির্দিষ্ট ব্যবস্থার সাথে শক্তি বিনিময়ে সক্ষম যে কোনো ব্যবস্থাকে ঐ ব্যবস্থার পরিপার্শ্ব বলে। কোনো ব্যবস্থার যান্ত্রিক কাজ সম্পাদন বা তাপ প্রদানের মাধ্যমে তা পরিপার্শের সাথে শক্তি বিনিময় করতে পারে ।

তাপগতীয় স্থানাক্ত কাকে বলে

যে সকল রাশির মান কোনো ব্যবস্থার অবস্থা নির্ধারণ করে সেগুলোকে ব্যবস্থার তাপগতীয় স্থানাক্ত বলে।

যেমন: সিলিন্ডারে আবদ্ধ গ্যাস হলো অবস্থা এবং গ্যাসের অবস্থার বৈশিষ্ট্য নির্দেশ করে এর চাপ, আয়তন ও তাপমাত্রা।

তাপগতীয় সাম্যবস্থা কাকে বলে

কোনো বিচ্ছিন্ন ব্যবস্থার চূড়ান্ত অবিচল অবস্থাকে তাপগতীয় সাম্যবস্থা বলা হয়।

সাম্যবস্থায় ব্যবস্থায় সকল বিন্দুতে তাপগতীয় স্থানাঙ্ক অর্থাৎ চাপ, আয়তন ও তাপমাত্রার মান সমান।

তাপগতীয় প্রক্রিয়া কাকে বলে

কোনো ব্যবস্থার তাপগতির স্থানাঙ্ক সমূহের যে কোনো পরিবর্তনকে তাপগতীয় প্রক্রিয়া বলা হয়।

 

তাপগতিবিদ্যার শূন্যতম সূত্রটি বিবৃত ও ব্যাখ্যা কর

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top